Sunday , 17 February 2019

জাজিরায় প্রতিপক্ষের গুলিতে নিহত ১

Shariatpur pic 02 10.07.16শহিদুল ইসলাম ॥ শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার সেনেরচর ইউনিয়নের বালিয়া কান্দি গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলায় গুলিবিদ্ধ হয়ে হারুন মাদবর (৩৭) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। এলাকার আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের লোকজন তাকে গুলি করে হত্যা করে। ওই হামলায় আরো দুই ব্যাক্তি গুলিবিদ্ধ হয়েছে। রোববার বিকাল ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুই ব্যক্তিকে আটক করেছে।
জাজিরা থানা সূত্র জানায়, শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার সেনেরচর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোসলেম মাদবরের সাথে স্থানীয় এসকেন্দার মাদবরের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিরোধ চলছিল। রোববার সকালে এসকেন্দারের সমর্থকরা মোসলেম মাদবরের এক সমর্থককে মারধর করে। এর জের ধরে বিকালে মোসলেম মাদবরের সমর্থকরা এসকেন্দার সমর্থকদের উপর গুলি ছোড়ে। তখন হারুন মাদবর (৩৭), নুরুল ইসলাম মাদবর (৫০) ও মিলন তালুকদার (৩০) গুলিবিদ্ধ হয়। তাদের উদ্ধার করে জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। হাসপাতালে আনার পথে হারুন মাদবরের মৃত্যু হয়। হারুন মাদবর সেনেরচর ইউপির বালিয়াকান্দি গ্রামের হামেদ মাদবরের ছেলে। গুলিবিদ্ধ অপর দুই ব্যক্তিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ বালিয়াকান্দি গ্রাম থেকে এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে জিয়াউর রহমান ও সোরহাব হোসেন নামে দুই ব্যক্তিকে আটক করেছে।
হারুন মাদবরের চাচাতো ভাই এসকেন্দার মাদবর বলেন, বিকালে আমাদের বাড়ির সামনে আমার ভাইয়েরা দাঁড়িয়ে কথা বলতেছিল। বিকেল ৫টার দিকে মোসলেম মাদবরের ছেলে মান্নান মাদবরের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা সেখানে উপস্থিত হয়ে অতর্কিতে গুলি ছোড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই আমার চাচাতো ভাই গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়।
জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা মাহমুদুল হাসান বলেন, মৃত অবস্থায় হারুন মাদবরকে হাসপাতালে আনা হয়েছে। তার শরীরের ৬টি স্থানে গুলির আঘাত রয়েছে। গুলিবিদ্ধ আরো দুই ব্যক্তিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।
রোববার সন্ধ্যায় বালিয়াকান্দি গ্রামে মোসলেম মাদবরের বাড়িতে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি। তার স্বজনরা এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজী হয়নি।
জাজিরা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নজরুল ইসলাম বলেন, এসকেন্দার মাদবর ও মোসলেম মাদবরের মধ্যে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিরোধ ছিল। তাদের কর্মীদের মারধরের জের নিয়ে সন্ত্রাসীদের অতর্কিত হামলায় হারুন মাদবর নামে এক ব্যক্তি মারা যায়। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুই ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে।
শরীয়তপুর ২৪/জাজিরা/অপরাধ/১০ জুলাই, ২০১৬ খ্রি:/


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*